সর্বশেষ আপডেট
অপেক্ষা করুন...
শুক্রবার, ৮ আগস্ট, ২০১৪

বিয়ের আগে নানা প্রকার অনাচারের জন্য হয়ত যৌন সংক্রান্ত বিভিন্ন সমস্যার মুখোমুখি হতে পারেন। আমাদের দেশের যুবকদের অধিকাংশের ক্ষেত্রেই এটা দেখা যায়। আপনি হয়ত জানেনও না যে প্রপার ট্রিটমেন্ট না করলে এ সমস্যা গুলো আপনাকে সারা জীবনই বয়ে বেড়াতে হবে।

তবে ঐ গুলো নিয়ে আপনাদের টেনসনের কোনো কারণ নাই। হোমিওপ্যাথি চিকিত্সা নিন, বলে রাখলাম মাত্র কয়েক মাসের চিকিত্সায় আজীবনের জন্য আপনার যৌন সমস্যাগুলো দূর হয়ে যাবে। তবে অবশ্যই ভালো কোন হোমিওপ্যাথের দারস্থ হবেন। কারণ আপনার Symptoms অনুসারে হোমিও ঔষধ সিলেকশন না হলে ঐ ঔষধ খেয়ে যাওয়া আর গ্লাস ভর্তি সাদা পানি খেয়ে যাওয়ার মধ্যে কোনো তফাৎই থাকবে না। আমাদের কাছে এরকম একজন রোগী আসছিলেন তিনি নাকি ৪ বছর যাবৎ ঔষধ খেয়ে আসছেন।
https://youtu.be/S1ydE05aX-0
ইন্টার্নি করার সময় আমাদের একজন সিনিয়র ডাক্তার বলেছিলেন বাংলাদেশের ৭০%-৮০% হোমিও ডাক্তার যথাযথ চিকিত্সাটাই দিতে জানেন না। কারণটা আমরা এখন খুব ভালোভাবেই বুঝতে পারছি। আমরা এমনও অনেক হোমিওপ্যাথি ডাক্তার দেখেছি, রোগ নিয়ে তাদের কাছে কেউ গেলেই তারা বই বের করে একবার দেখে নেন (ক্ষেত্রে বিশেষে প্রযোজ্য)। আবার কেউ কেউ একটা বোতলে সাদা স্পিরিট দিয়ে আগামী কাল বা ৩ দিন পর আবার দেখা করতে বলেন , আর এই সময়টাতে তিনি বই খুলে দেখে নেন। ভেবে দেখুন আপনি আপনার ভালো ছেলে বা মেয়েটাকে ইঞ্জিনিয়ার বা MBBS ডাক্তার বানাতে চাইবেন কিন্তু হোমিওপ্যাথ বানাতে চাইবেন না। অর্থাৎ খুব কম মেধাবীদেরই  হোমিওপ্যাথ হতে দেখা যায়। তাই আমাদের সিনিয়র সেই স্যারের কথাটা কোন ভাবেই অযৌক্তিক মনে হয় নি। 

এবার আসুন মূল বিষয়ে যাই। আমাদের কাছে ট্রিটমেন্ট নিতে আসা এমন কয়েক জনকেই দেখলাম তেমন কোনো সমস্যা নেই কিন্তু তারপরও তারা যৌন মিলন নিয়ে বেশ ভীত। এই প্রকার রোগীদের ক্ষেত্রে আমরা যে পরামর্শ গুলো দিয়ে থাকি সেগুলো হলো :- 
  • আপনার স্ত্রী সম্পর্কে মনের একান্ত ভাবনা গুলো তাকে খুলে বলুন। দেখবেন স্ত্রী আপনার মনোবল বাড়াতে উৎসাহ যোগাবে। বেস, তাতেই আপনি ৮০% রেজাল্ট পেয়ে যাবেন আশা করি। 
  • এমনটি ভাবা থেকে বিরত থাকুন যে,  যৌন মিলন একজনের একার পারফরমেন্স। এখানে স্বামী এবং স্ত্রী দু'জনেরই তৃপ্তির আদান-প্রদান হয় বিভিন্ন আসন ভঙ্গিতে। এতে সবসময়ই ‘পরিপুর্ন তৃপ্তি’ পেতে হবে এমনটি আশা করাও ঠিক নয়।
  • মানসিক প্রশান্তির জন্য ব্যায়াম, সামাজিক কর্মকান্ড এবং আপনার শখের কাজগুলো করুন। মনের প্রশান্তিই আপনাকে সহবাসে দারুন উৎসাহীকরে তুলবে।
  • সম্ভব হলে মাঝে মাঝে সহবাসের সময় আবহ সৃষ্টি করুন। ফুল, মোমবাতির আধো আলো-ছায়া এবং সুগন্ধি দিয়ে এক মায়াবী বলয় তৈরি করতে পারেন। দেখবেন আপনার পুরো অনুভূতিটাই পরিবর্তন হয়ে গেছে। 
  • যৌন মিলন শব্দটিকে পুনঃবিন্যাস করুন। মিলন বলতে শুধু সরাসরি শারীরিক মিলন বুঝায় না। এটা হতে পারে চুমো খাওয়া, ছোয়া ইত্যাদি। অর্থাৎ স্বামী স্ত্রীর সহবাস হচ্ছে পরষ্পরের তৃপ্ত অনুভব। এ সময় তৃপ্তির বিনিময় হয়ে থাকে। তাই বিষয়গুলো চর্চা করলে উপকৃত হবেন আশা করি। ধন্যবাদ, ভালো থাকবেন সবাই। 
আধুনিক হোমিওপ্যাথি, ঢাকা
ডাক্তার হাসান; ডি. এইচ. এম. এস(BHMC)
যৌন ও স্ত্রীরোগ, লিভার, কিডনি ও পাইলসরোগ বিশেষজ্ঞ হোমিওপ্যাথ
১০৬ দক্ষিন যাত্রাবাড়ী, শহীদ ফারুক রোড, ঢাকা ১২০৪, বাংলাদেশ
ফোন :- +88 01727-382671 এবং +88 01922-437435
স্বাস্থ্য পরামর্শের জন্য যেকোন সময় নির্দিধায় এবং নিঃসংকোচে যোগাযোগ করুন।

0 comments:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

 
[X]