Disqus for digitalmesh

শনিবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী, ২০১৬

খালি পেটে ভুলেও খাবেন না যে খাবার গুলি

  • ৮:৩৩ AM

    ঘুম থেকে উঠে অনেকে অনেক কাজ করে থাকেন। কেউ খালি পেটে পানি পান করেন কেউ বা চা আবার কেউ খালি পেটে কফি পান করে থাকেন। কিন্তু আপনি কি জানেন খালি পেটে কোন খাবারগুলো খাওয়া উচিত আর কোন খাবারগুলো খাওয়া একেবারেই উচিত নয়? খালি পেটে লেবু পানি বা রসুনের কোয়া খাওয়া স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী তা আমরা জানি। এমন কিছু খাবার আছে যা দারুন স্বাস্থ্যকর, কিন্তু খালি পেটে খাওয়া একদমই উচিত নয়।

    ১। সোডা জাতীয় পানি পান : খালি পেটে কোক, মিরিন্ডা, বা সোডা জাতীয় খাবার খেলে কি হবে? এই খাবারগুলো অ্যাসিড লেভেল বৃদ্ধি করে দেয়, যার কারণে অ্যাসিডিটি সমস্যা, বমি বমি ভাব এমনকি জ্বালাপোড়ার সমস্যা দেখা দিয়ে থাকে।

    ২। কলা : স্বাস্থ্যকর এই ফলটি খালি পেটে খাওয়া বেশ ক্ষতিকর। আমরা সবাই জানি কলা ম্যাগনেসিয়ামের একটি বড় উৎস। কিন্তু খালি পেটে কলা খেলে শরীরের ম্যাগনেশিয়ামের পরিমাণ বৃদ্ধি করে দেয়। যার কারণে শরীরে ম্যাগনেশিয়াম এবং ক্যালসিয়ামের মধ্যে ভারসাম্যহীনতা দেখা দেয়। যা হৃদয় ও রক্ত ধমনী জন্য ক্ষতিকর হয়ে থাকে।

    ৩। টমেটো : টমেটোতে প্রচুর পরিমাণে পেকটিন এবং ট্যানিক অ্যাসিড রয়েছে। টমেটো খালি পেটে খেলে, ট্যানিক এবং পেকটিন অ্যাসিডের সাথে গ্যাস্ট্রিক অ্যাসিডের বিক্রিয়া ঘটিয়ে থাকে। যা পাকস্থলীতে পাথর সৃষ্টি করে।
    ৪। টক দই : স্বাস্থ্যকর টকদই ও খালি পেটে খাওয়া অস্বাস্থ্যকর। এটি আপনার হজম শক্তি নষ্ট করে দেয়। এমনকি টকদইয়ে পুষ্টিগুণ নষ্ট হয়ে যায় খালি পেটে এটি খাওয়ার কারণে।

    ৫। মিষ্টি আলু : মিষ্টি আলুতে টমেটোর মত পেকটিন এবং ট্যানিক অ্যাসিড রয়েছে। যার কারণে খালি পেটে খেলে পাকস্থলীতে পাথর হতে পারে। এমনকি এটি বুক জ্বালাপোড়া, গ্যাসিটের ব্যথার কারণও হয়ে দাঁড়ায়।

    ৬। মশলা জাতীয় খাবার : অতিরিক্ত ঝাল মশলা জাতীয় খাবার স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। খালি পেটে ঝাল মশলা জাতীয় খাবার খাওয়ার ফলে পাকস্থলীতে গ্যাস সৃষ্টি হয়ে থাকে, যা অ্যাসিডিটিসহ পেটে ব্যথার কারণ হয়ে থাকে।
    আধুনিক হোমিওপ্যাথি, ঢাকা
    ডাক্তার হাসান; ডি. এইচ. এম. এস(BHMC)
    যৌন ও স্ত্রীরোগ, লিভার, কিডনি ও পাইলসরোগ বিশেষজ্ঞ হোমিওপ্যাথ
    ১০৬ দক্ষিন যাত্রাবাড়ী, শহীদ ফারুক রোড, ঢাকা ১২০৪, বাংলাদেশ
    ফোন :- +88 01727-382671 এবং +88 01922-437435
    স্বাস্থ্য পরামর্শের জন্য যেকোন সময় নির্দিধায় এবং নিঃসংকোচে যোগাযোগ করুন।