সর্বশেষ আপডেট
অপেক্ষা করুন...
বৃহস্পতিবার, ১০ মার্চ, ২০১৬

জলাপাই তেল বা যাকে আমরা অলিভ ওয়েল বলি। সেই অলিভ ওয়েল আসলে আমাদের কি কি উপকার সে বিষয়ে জানার জন্যই আজকের এই টিপস। জলপাই তেল বা অলিভ ওয়েল সাধারণ একটি তেল হলেও এটি আমাদের প্রভূত উপকার করে থাকে। কিন্তু কি কি উপকার করে এই অলিভ ওয়েল তা আমাদের জানা নেই। এই অলিভ ওয়েল আমাদের অনেক উপকার করে থাকে।

শোনা যায়, মানুষের শরীরের শান্তির দূত হলো জলপাইয়ের তেল বা অলিভ ওয়েল। আরবিতে জয়তুন নামে ডাকা হয়। ভেষজ গুণে ভরা এই ফলটি লিকুইড গোল্ড বা তরল সোনা নামেও পরিচিত। গ্রীক সভ্যতার প্রারম্ভিক কাল থেকে এই তেল ব্যবহার হয়ে আসছে রন্ধন কর্মে ও চিকিৎসা শাস্ত্রে। আকর্ষণীয় এবং মোহনীয় সব গুণ এই জলপাইয়ের তেলের মধ্য রয়েছে।

অলিভ ওয়েল-এ কি কি গুণ রয়েছে :- বিজ্ঞানীদের মতে, জলপাই তেলে এমন উপাদান রয়েছে, যেগুলো আমাদের শরীরকে সুস্থ এবং সুন্দর রাখে। জলপাই তেল বা অলিভ ওয়েল পেটের জন্য খুব ভালো। এটা শরীরে এসিড কমায়, লিভার পরিষ্কার করে। যাদের কোষ্টকাঠিণ্য রয়েছে, তারা দিনে এক চা চামচ জলপাই তেল খেলে উপকার হবে।
ত্বকের যত্নে জলপাই তেল :- বিজ্ঞানীদের মতে, এই জলপাই তেল ত্বকের যত্নে ভালো কাজ করে। জলপাই তেল গায়ে মাখলে বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ত্বক কুচকানো প্রতিরোধ হয়। এ তেলের রান্না যেমন ভালো, ত্বকে এর ব্যবহারও উপকারী। যাঁদের ত্বকে চুলকানির সমস্যা রয়েছে, তাঁরা নির্দ্বিধায় এ তেল ম্যাসাজ করতে পারেন। শিশুর ত্বকেও নিরাপদ। জলপাই তেল মাথার ত্বকের খুশকি দূর করার জন্যও উপকারী।শুষ্ক তালু প্রাণ ফিরে পায় অলিভ অয়েলের গুণে। অলিভ অয়েল অতিরিক্ত শুষ্ক ও ছোপ ছোপ ত্বক কোমল ও মসৃণ করে।

ধর্মেও রয়েছে জলপাই তেলের উপকারের কথা :-  ইসলাম ধর্মেও জলপাইয়ের তেল খাওয়া এবং ব্যবহারের গুরত্ব দেয়া হয়েছে। আল্লাহর রাসুল (স.) বলেছেন, “কুলু আয যাইতু ওয়াদ দাহিনু বিহি, ফা ইন্নাহু মিন শাজারাতিন মুবারাকাতিন” অর্থ- তোমরা এই তেলটি খাও, তা শরীরে মাখাও।”

কোলেস্টরেল কমাতেও জলপাই তেল :- কোলেস্টরেল কমাতেও জলপাই তেল বিশেষ উপকার করে থাকে। আর তাই যাদের কোলস্টেরলের মাত্রাটা বেশি, তাঁদের জন্য জলপাই তেলের কোনো বিকল্প নেই।

কানের সমস্যায় জলপাই তেল :- যাদের কানের সমস্যায় রয়েছে তাদের ক্ষেত্রে এই জলপাই তেল বা অলিভ ওয়েল বিশেষ উপকার করে থাকে। কানের মধ্যে চুলকানি এ গন্ধ হওয়া এমন বেশ কিছু নর্মাল সমস্যা অনেকেরই রয়েছে। এসব সমস্যা সমাধান করে এই জলপাই তেল বা অলিভ ওয়েল। কটন বার অলিভ ওয়েলে ভিজিয়ে খুব সাবধানে কানের মধ্যে দিলে বেশ উপকার পাওয়া যায়। তবে কোন মতেই যেনো কানের মধ্যে কাঠির চাপ না লাগে সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। বা ড্রপারে করে এক বা দুই ফোটা অলিভ ওয়েল কানে দিতে হবে। এতে কানের চুলকানি কমে আসবে। তবে কানে বড় কোন সমস্যা দেখা দিলে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।

শিশুদের গায়ে বিশেষ করে শীতের দিনে এই জলপাই তেল বা অলিভ ওয়েল অত্যান্ত উপকারী। এটি নিয়মিত ব্যবহার করা উচিত। এভাবে জলপাই তেল বা অলিভ ওয়েল আমাদের প্রভূত উপকার করে থাকে। তাই জলপাই তেল বা অলিভ ওয়েল সম্পর্কে সচেতন হবেন এবং এর ব্যবহার বাড়িয়ে নিজে সুন্দর থাকুন এবং পরিবারের অন্যসব সদস্যদেরও সুস্থ্য সুন্দর থাকতে সাহায্য করুন
আধুনিক হোমিওপ্যাথি, ঢাকা
ডাক্তার হাসান; ডি. এইচ. এম. এস(BHMC)
যৌন ও স্ত্রীরোগ, লিভার, কিডনি ও পাইলসরোগ বিশেষজ্ঞ হোমিওপ্যাথ
১০৬ দক্ষিন যাত্রাবাড়ী, শহীদ ফারুক রোড, ঢাকা ১২০৪, বাংলাদেশ
ফোন :- +88 01727-382671 এবং +88 01922-437435
স্বাস্থ্য পরামর্শের জন্য যেকোন সময় নির্দিধায় এবং নিঃসংকোচে যোগাযোগ করুন।

0 comments:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

 
[X]