সর্বশেষ আপডেট
অপেক্ষা করুন...
সোমবার, ২০ জুন, ২০১৬

রমজান মাসে মুসুল্লীরা যে খাবারটিকে বেশি গুরুত্ব দিয়ে থাকে তা হল খেজুর। রমজানে খেজুরের চাহিদা থাকে সবচেয়ে বেশি। কিন্তু এক শ্রেণীর অসাধু ব্যবসায়ীরা বেশি লাভের আশায় খেজুরে মিশিয়ে যাচ্ছে বিষাক্ত ফরমালিন। রাজধানীর বিভিন্ন বাজারে ৮৭ ভাগ খেজুর ও ৮ ভাগ আমে বিষাক্ত ফরমালিনের উপস্থিতি রয়েছে বলে জানিয়েছেন পরিবেশ বাঁচাও আন্দোলন (পবা)। শনিবার রাজধানীর কলাবাগানে পবার কার্যালয়ে বিষাক্ত ফরমালিন ব্যবহারের বর্তমান পরিস্থিতি জানারে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজনে এসব তথ্য জানানো হয়।

পবার সাধারণ সম্পাদক আবদুস সোবহানের সভাপতিত্বে সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, পবার যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ডা. লেলিন চৌধুরী, সমন্বয়কারী আতিক মোরশেদ, মডার্ন ক্লাবের সভাপতি আবুল হাসনাত, বিসিএইচআরডির নির্বাহী পরিচালক মাহবুল হক প্রমুখ।
এসময় নির্বাহী সাধারণ সম্পাদক মো. আবদুস সোবহান জানান, গত ৭ থেকে ১৭ জুন পর্যন্ত ঢাকার বিভিন্ন এলাকা থেকে আমের ৫১টি, জামের ৬টি, লিচুর ৮টি, আপেলের ৬টি, আঙ্গুরের ৪টি, মালটার ৮টি, আনারসের ২টি ও খেজুরের ৮টিসহ মোট ৯৩টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়। এর মধ্যে ৮ শতাংশ আমের এবং ৮৭ শতাংশ খেজুরের নমুনায় ফরমালিন পাওয়া গেছে। তবে অন্য ফলগুলোতে ফরমালিন পাওয়া যায়নি।

তিনি আরো বলেন, ঢাকা মহানগরীতে বিভিন্ন দোকানে ফরমালিন ও কেমিক্যালমুক্ত রাজশাহী আমের ব্যানার লাগিয়ে জনগণকে যে প্রতারণা করা হচ্ছে সে বিষয়ে সরকারের সংশ্লিষ্ট সংস্থার আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া প্রয়োজন। কেমিক্যাল মিশ্রিত খাবারে ক্যান্সারসহ কিডনি ও লিভারের জটিল রোগ হতে পারে। খাদ্যে ফরমালিন মেশানোর সঙ্গে জড়িত ব্যক্তি ও বিক্রেতাদের ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে শাস্তি দেয়া যথেষ্ট নয়। বিশেষ ক্ষমতা আইনের ২৫ (ক) ধারা ব্যবহার করতে হবে বলে জানান তিনি।
আধুনিক হোমিওপ্যাথি, ঢাকা
ডাক্তার হাসান; ডি. এইচ. এম. এস(BHMC)
যৌন ও স্ত্রীরোগ, লিভার, কিডনি ও পাইলসরোগ বিশেষজ্ঞ হোমিওপ্যাথ
১০৬ দক্ষিন যাত্রাবাড়ী, শহীদ ফারুক রোড, ঢাকা ১২০৪, বাংলাদেশ
ফোন :- +88 01727-382671 এবং +88 01922-437435
স্বাস্থ্য পরামর্শের জন্য যেকোন সময় নির্দিধায় এবং নিঃসংকোচে যোগাযোগ করুন।

0 comments:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

 
[X]