সর্বশেষ আপডেট
অপেক্ষা করুন...
মঙ্গলবার, ২৮ জুন, ২০১৬

জলপাই আমরা সকলেই চিনি। আচার হিসাবে, তরকারিতে কিংবা রুচি বর্ধক হিসাবে আমাদের দেশে জলপাইয়ের বহুল ব্যবহার আছে। জলপাই শীতকালীন ফল। পৃথিবীর প্রায় সব দেশেই এই ফলটি পাওয়া যায়। আমাদের দেশে সবুজ জলপাই সহজলভ্য। পৃথিবীর অনেক দেশে কালো জলপাই জন্মে। জলপাইয়ের পাতা ও ফল দুটোই ভীষণ উপকারী। জলপাইয়ের রস থেকে যে তেল তৈরি হয় তার রয়েছে যথেষ্ট পুষ্টিগুণ। 

বিশ্ব জুড়ে এই অলিভ অয়েল বা জলপাইয়ের তেল অত্যন্ত জনপ্রিয় হলেও চড়া দামের কারণে আমাদের দেশে খুব একটা ব্যবহৃত হয় না। চলুন, এক নজরে জেনে নিন প্রকৃতির অনন্য উপাদান জলপাইয়ের কিছু গুণাবলী। -জলপাইতে রয়েছে উচ্চমানের ভিটামিন সি, ভিটামিন এ, ভিটামিন ই। জলপাই দেহের রোগজীবাণু ধ্বংস করে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়, উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করতে সহায়তা করে, রক্তে চর্বি জমা প্রতিরোধ করে হৃদপিণ্ডকে সুস্থ রাখে। 
 
-জলপাইতে রয়েছে প্রচুর আয়রন যা রক্ত শুন্যতা দূর করতে সহায়ক। নিয়মিত জলপাই খেলে খোস পাঁচড়া দ্রুত নিরাময় হয়, যে কোন কাটা ছেঁড়া দ্রুত আরোগ্য হয়। 
 
-জলপাইয়ের খোসায় রয়েছে আঁশজাতীয় উপাদান। এই আঁশ কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে, ত্বকের ঔজ্জ্বল্য বাড়ায়, কোলনের পাকস্থলীর ক্যানসার দূর করতে রাখে অগ্রণী ভূমিকা। 
 
-জলপাই তেল পেটের জন্য খুব ভালো। এটা শরীরে এসিড কমায়, লিভার পরিষ্কার করে। যাদের কোষ্টকাঠিণ্য রয়েছে, তারা দিনে এক চা চামচ জলপাই তেল খেলে উপকার পাবেন। 
 
-জলপাই তেল বলিরেখা প্রতিরোধে সহায়ক। এছাড়া ত্বকের স্ট্রেস মার্ক দূর করতেও ভীষণ উপকারী। শুষ্ক ত্বকে পুষ্টি জগাতে এই তেল অসাধারণ।
 
-ত্বকের আর্দ্রতা ধরে রাখতে জলপাই তেলের জুড়ি মেলা কঠিন। কারণ জলপাই তেলের রাসায়নিক গঠন, মানুষের ত্বকের প্রাকৃতিক তেলের কাছাকাছি। জলপাই তেলে আছে ভিটামিন-ই যা শুষ্ক ত্বকের আর্দ্রতা রক্ষা করতে কার্যকর ভুমিকা রাখে।
আধুনিক হোমিওপ্যাথি, ঢাকা
ডাক্তার হাসান; ডি. এইচ. এম. এস(BHMC)
যৌন ও স্ত্রীরোগ, লিভার, কিডনি ও পাইলসরোগ বিশেষজ্ঞ হোমিওপ্যাথ
১০৬ দক্ষিন যাত্রাবাড়ী, শহীদ ফারুক রোড, ঢাকা ১২০৪, বাংলাদেশ
ফোন :- +88 01727-382671 এবং +88 01922-437435
স্বাস্থ্য পরামর্শের জন্য যেকোন সময় নির্দিধায় এবং নিঃসংকোচে যোগাযোগ করুন।

0 comments:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

 
[X]